1. postmaster@deliveryforfun.com : deltonsun :
  2. gertrude@gameconsole.site : hiltonsoutherlan :
  3. carrington@miki8.xyz : imayfe2724819 :
  4. admin@zahidit.com : Publisher :
  5. nihal.sultanul@gmail.com : Jamuna Protidin : নিউজ এডিটর
রঙ্গিন ঘুড়ি নিয়ে মেতেছে পাঁচবিবি শহরের তরুণ প্রজন্ম » Jamuna Protidin
সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Cialis -Top Ten Questions And Answers ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় রাসেল বিল্লাল গ্রেফতার এপার বাংলার কথায় ওপার বাংলার ‘ভালোবাসি চলো আবারও’ গলাচিপায় সক্রিয় কালা জ্বর রোগ শনাক্তকরণ সভা গলাচিপা হাসপাতালের শিশু ও প্রসূতি ওয়ার্ড ঝুকিপূর্ণ গণসংযোগে ব্যস্ত শ্যামল সিদ্দিক,জনসমর্থনে নৌকা এগিয়ে রাজশাহী জেলা পরিষদ কার্যালয়ে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভা পুলিশের অভিযানে নওগাঁর নিয়ামতপুরে অবৈধ ফেন্সিডিল উদ্ধার’ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নওগাঁর মান্দায় মাছধরাকে কেন্দ্র করে ছোট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড় ভাই নিহত,আটক-২ মান্দায় প্রতিপক্ষের আঘাতে বৃদ্ধের মৃত্যু, আটক ২

রঙ্গিন ঘুড়ি নিয়ে মেতেছে পাঁচবিবি শহরের তরুণ প্রজন্ম

আল জাবির,পাঁচবিবি(জয়পুরহাট)
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০
  • ৯৭ বার পঠিত

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে স্থবির হয়ে পড়েছে বিশ্ব। করোনার ভয়াবহতা বদলে দিয়েছে পুরো পৃথিবীর দৃশ্যপট। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ছুটে চলা মানুষগুলো এখন প্রায় ঘরবন্দী।

এ অবস্থায় নিরাপদে থাকতে স্কুল-কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সেই সঙ্গে বন্ধ সব আউটডোর খেলাধুলা। আর এ লম্বা ছুটিতে বাঙালির ঐতিহ্য রঙ্গিন ঘুড়ি নিয়ে পাঁচবিবি শহরের তরুণ প্রজন্ম।

শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সের অনেকেই এক সঙ্গে বাড়ির ছাদে ঘুড়ি ওড়াতে দেখা যায়। বিকেল হলেই যেন প্রতিটি বাড়ির ছাদে চলে ঘুড়ি উৎসব। ঘুড়ির সুতোয় কাটাকাটি খেলে কিংবা দূর আকাশে ঘুড়ি পাঠিয়ে এ যেন করোনাকালীন ক্লান্তি ও অবসাদ দূর করার এক সুস্থ অনাবিল প্রতিযোগিতা।

শহরবাসী বলছেন, করোনা পরিস্থিতির উন্নতি কবে হবে তা বলা যাচ্ছে না। আবার বাসায় দীর্ঘদিন অবস্থান করার ফলে অনেকের মধ্যেই ক্লান্তিও অবসাদ ভর করছে। অনেকেই ঘুড়ি উড়িয়ে সেই ক্লান্তি ও অবসাদ ঝেড়ে ফেলতে চাইছেন। মুক্ত আকাশে ঘুড়ি উড়িয়ে বদ্ধ হয়ে থাকা এক মানসিক যন্ত্রণা থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি মেলছে।

পাঁচবিবি শহরের মিনহাজ মন্ডল বলেন , দীর্ঘদিন ধরে কলেজ বন্ধ। বিকেলে মাঠে খেলাধুলা করতাম। এখন তো আর সেটা সম্ভব নয়। সবসময় রুমেই থাকতে হয়। একঘেয়েমি কাটাতে বিকেলে এখন সবাই মিলে ঘুড়ি ওড়াই। ভালোই লাগে। এতে বদ্ধ জীবনে মানসিক প্রশান্তি মেলে।

এদিকে, চাহিদা বাড়ায় পাঁচবিবিতে জমে উঠেছে নাটাই-ঘুড়ির ব্যবসাও। ঘুড়ির নাটাই ও মাঞ্জা তৈরির কমপক্ষে বেশ কয়েকটি অস্থায়ী কারখানা গড়ে উঠেছে পাঁচবিবিতে ।

পাঁচবিবির ভ্রাম্যমান এক ব্যবসায়ী বলেন, প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্তু ঘুড়ি, নাটাই ও মাঞ্জা তৈরি করি । বৈকাল হলে পাঁচবিবি শহরের বিভিন্ন জায়গায় এসব তৈরি করা ঘুড়ি, নাটাই বিক্রয় করি । ঘুড়ি বিক্রি হয় ১০ টাকা করে আর নাটাই বিক্রি হয় ১০০-২০০ টাকা পর্য়ন্তু ।

অন্য এক ব্যবসায়ী বলেন, এর আগে কখনো এতো ঘুড়ির চাহিদা দেখা যায়নি। আগে সাধারণত শীতকাল থেকে বসন্তকাল পর্যন্ত ঘুড়ি ওড়াতে দেখা যেত। কিন্তু এবার গরমের মধ্যে ঘুড়ি ওড়াতে দেখা যাচ্ছে । অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে অনেক বেশি নাটাই-ঘুড়ি বিক্রি হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন এ ব্যবসায়ী।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | যমুনাপ্রতিদিন.কম

Theme Customized BY LatestNews