1. postmaster@deliveryforfun.com : deltonsun :
  2. gertrude@gameconsole.site : hiltonsoutherlan :
  3. carrington@miki8.xyz : imayfe2724819 :
  4. admin@zahidit.com : Publisher :
  5. nihal.sultanul@gmail.com : Jamuna Protidin : নিউজ এডিটর
ফেরিওয়ালাও একজন মানুষ! » Jamuna Protidin
সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাত পার হলেই মান্দা উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচন  হযরত গাজী নুরুজ্জামান পেটান শাহ মাইজভান্ডারীর (রঃ) খোশরোজ শরীফ উদযাপন নড়াইলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১ দূর্গাৎসব উপলক্ষে মহানগরীসহ ৯টি উপজেলার প্রায় শতাধিক মন্দিরকে জেলা পরিষদের চেক বিতরণ মোহনপুরে গ্রাম ভিত্তিক অস্ত্রবিহীন ভিডিপি মৌলিক প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান  পুঠিয়ায় পানিতে ডুবে বুদ্ধি-প্রতিবন্ধি যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু’ সঠিক জানতে লাশ ময়না তদন্তে র‍্যাব-৫ এর বিরতিহীন চলমান অভিযানে বিপুল পরিমান হেরোইনসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নওগাঁ মান্দায় ব্যতিক্রমী প্রতিমায় দূর্গাপুজার আয়োজন পাঁচবিবিতে প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ মোহনপুরে শারদীয় দুর্গাপূজা ২০২০ উদযাপন উপলক্ষে সভা অনুষ্ঠিত

ফেরিওয়ালাও একজন মানুষ!

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭১ বার পঠিত

লেখকঃ তাসফীর ইসলাম (ইমরান)

ফেরিওয়ালা; নগর ও গ্রামাঞ্চলের ক্ষুদে ব্যবসায়ী। হকাররা বাড়ি বাড়ি ঘুরে অথবা অন্যান্য জনসমাগমে পণ্য ও সেবা ফেরি করে।

বাস,লঞ্চ, ট্রেনে, রাস্তায়,বাড়ি-বাড়ি হেঁটে নানা ধরনের সামগ্রী যারা বিক্রি করেন তাঁদেরকেই আমরা ফেরিওয়ালা নামে চিনি। একজন ফেরিওয়ালা শুধু পাড়া মহল্লাতেই সামগ্রী বিক্রি করে না। বাস,লঞ্চ,ট্রেনেও ফেরিওয়ালা থাকে। বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের ফেরিওয়ালা থাকে। কেউ কেউ বিক্রি করে মাছ,শাকসবজি, জামা-কাপড়, পুতুল ইত্যাদি। বাজারের থেকে কম মূল্যে ফেরিওয়ালাদের কাছ থেকে সামগ্রী কেনা যায়।

সে দ্বারে দ্বারে ঘুরে বিভিন্ন সৌখিন এবং সস্তা সামগ্রী বিক্রি করে। তার কোন নির্দিষ্ট দোকান নেই। সে মাঝে মাঝে তার কাধের মধ্যে তার দ্রব্যাদি বহন করে। মাঝে মাঝে সে তার হাতে আবার কখনো ছোট হস্তচালিত গাড়িতে করে তার পণ্যসামগ্রী বহন করে। তাই তাকে “ভ্রাম্যমান দোকানও” বলা যায়। সে খেলনা, কাপড়, মিষ্টি খাবার, ফলমূল, থালা-বাসন, প্রসাধনী, আইসক্রীম, ফিতা, চুড়ী, মালা, ইমিটেশন অলংকার, চানাচুর ও ঝালমুড়ি বিক্রি করে। সে বিভিন্নভাবে তার ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চেষ্টা করে। সে প্রায়ই তার দ্রব্যের নাম ধরে গান গায় এবং রাস্তায় ঘুরে বেড়ায়।

বাস,লঞ্চ,ট্রেনের ফেরিওয়ালা স্বপন। দু’চোখে স্বপ্ন তার, ক্ষুধার্ত শিশুর মুখে দু’বেলা দু’মুঠো অন্ন তুলে দিয়ে তার পিতৃত্বের কর্তব্য পালন করা।

– “পুতুল নেবে গো পুতুল…ভালো ভালো খেলনা আছে। আপনার বাচ্চা খেলবে আর আমার বাচ্চার পেট ভরবে…!”

প্রতিটি ফেরিওয়ালারই একটা পরিবার থাকে। সারাজীবন ফেরি করেই সে সোনা নিয়ে যায় পরিবারের জন্য। একজন কর্তব্যবান পিতার যে কতটা দ্বায়িত্ব তা একমাত্র ঐ পিতাই বুঝে।
সকাল হলেই ফেরি করতে বেরিয়ে পরে।
প্রতিদিনের এই দমবন্ধ হওয়া কঠোর আকুতি সাধারন মানুষের কাছে শুধুমাএ ডাক, কিন্তু এই ডাকই হচ্ছে এক কর্তব্য পরায়ণ ফেরিওয়ালা বাবার স্বপ্নপূরন করার খেলনা।

কিন্তু, সমাজে কিছু কিছু শ্রেনির মানুষ আছে যারা ফেরিওয়ালাদের সম্মান করেনা। অবহেলিত করে সবসময়। এটা কি তাদের প্রাপ্য? ফেরিওয়ালা কি মানুষ নয়; সে কি চোর? সে তো চুরি করে না। নিজে কষ্ট করে ফেরি করে উপার্জন করে। তাহলে তাদের ছোট করে দেখার কি কোনো যৌক্তিকতা আছে। আমরা উঁচুশ্রেণীর মানুষদের মতো তাদেরকেও সম্মান দেই,তাদের সাথে ভালো আচরন করি। তারাও তো মানুষ। তারা তো ফেরি করে আমাদের উপকারেই আসে। কোনো ক্ষতি তো করে না। আসুন, সবাই দৃষ্টিভঙ্গি বদলাই। সবাই দৃষ্টিভঙ্গি বদলালে একদিন দেখবেন আমাদের দেশই বদলে গেছে।

লেখকঃ তাসফীর ইসলাম (ইমরান)
অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীঃ –
বিভাগঃ সার্ভে ইঞ্জিনিয়ারিং
(১০৪ তম ব্যাচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | যমুনাপ্রতিদিন.কম

Theme Customized BY LatestNews