1. postmaster@deliveryforfun.com : deltonsun :
  2. gertrude@gameconsole.site : hiltonsoutherlan :
  3. nelianjani34067@gmail.com : ignaciomounts7 :
  4. carrington@miki8.xyz : imayfe2724819 :
  5. admin@zahidit.com : Publisher :
  6. nihal.sultanul@gmail.com : Jamuna Protidin : নিউজ এডিটর
বাংলাদেশে পর্নোগ্রাফীতে আসক্ত অধিকাংশ যুবসমাজ! » Jamuna Protidin
শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পাইকগাছার বোয়ালিয়া মোড়ে বজলু-সাইকেল স্টোরে চুরি মোহনপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৯ জনকে জরিমানা সিংড়ায় জোবায়ের স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রাজশাহীতে পুলিশ সুপারের সুসজ্জিত গাড়িতে করে বিদায়ী সম্মাননায় অশ্রুসিক্ত অবসরে যাওয়া কনস্টেবল! শাহজাদপুরে ‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ এর বৃক্ষরোপণ সুন্দরবনের দুবলার চরে ঐতিহ্যবাহী রাস উৎসবে নিরাপত্তায় থাকবে কোস্ট গার্ড রাজশাহী অঞ্চলের গাছিরা খেজুরের রস থেকে গুড় তৈরিতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন! নাসিরনগরে আমন ধানের বাম্পার ফলন কৃষকের মুখে আনন্দের হাসি বিরামপুরে তরুণ উদ্যোক্তার সাথে মতবিনিময় সভা পূর্বশত্রুতার জেরে দুর্বৃত্তের দেওয়া গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে ৫ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন

বাংলাদেশে পর্নোগ্রাফীতে আসক্ত অধিকাংশ যুবসমাজ!

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১০ নভেম্বর, ২০২০
  • ১১২ বার পঠিত

লেখকঃ তাসফীর ইসলাম (ইমরান)

পর্নোগ্রাফি একটি সর্বজন স্বীকৃত অশ্লীলতা। মানব সমাজকে পুতঃপবিত্র এবং বিশৃঙ্খলামুক্ত রাখার উদ্দেশ্যে ইসলামে সকল প্রকার অশ্লীলতাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আল্লাহ বলেন, ‘আপনি বলুন, আমার পালনকর্তা কেবলমাত্র অশ্লীল বিষয়সমূহ হারাম করেছেন- যা প্রকাশ্য-অপ্রকাশ্য এবং হারাম করেছেন গোনাহ, অন্যায়-অত্যাচার, আল্লাহর সাথে এমন বস্তুকে অংশীদার করা, তিনি যার কোনো সনদ অবতীর্ণ করেননি এবং আল্লাহর প্রতি এমন কথা আরোপ করা, যা তোমরা জান না। আল-কুরআন, ৭:৩৩।

পর্ন ভয়াবহ একটি স্লো-পয়জন যা আপনাকে শারীরিক, মানসিক ও সামাজিকভাবে তিলে তিলে ধ্বংস করে দিচ্ছে।

নিয়মিত পর্নোগ্রাফি দর্শকদের মস্তিষ্কের একটি অংশ ‘ ‘স্টেরিয়াটামের’ আকৃতি ও কার্যক্ষমতা কমতে থাকে। মস্তিষ্কের এই অংশটি উদ্দীপনা গ্রহন ও সুখানুভূতির সাথে সম্পৃক্ত।

বিশ্বব্যাপী যৌনসন্ত্রাস বৃদ্ধির ঘটনাকে পর্নোগ্রাফি ও অশলীলতা চর্চার ফল হিসেবে দেখিয়েছেন গবেষকরা।

পর্নোগ্রাফি দেখার ফলে মস্তিষ্ক যখন নিয়মিত মানসিক পরিস্থিতি উন্নয়নের হরমোন নিঃসরণ করতে থাকে, মস্তিষ্ক তখন এই নেশায় অভ্যস্ত হয়ে যায়।

পর্ন দেখার চূড়ান্ত পরিণতি হলো এটা আপনার পুরো যৌনজীবনকে আপনারই অজান্তে একটু একটু করে নষ্ট করে দিচ্ছে, আপনার পক্ষে বিন্দু পরিমান উপলব্ধি করাও সম্ভব হচ্ছে না। যখন উপলুদ্ধি করতে পারবেন তখন আর কিছুই করার থাকে না। চোর চুরি করে পালানোর পর বুদ্ধি করলে কী চুরি হওয়া জিনিস ফিরিয়ে আনা যায়? যায় না, তেমনি অমূল্য সম্পদ যৌবন একবার ধ্বংস হয়ে গেলে তা আর ফিরে আসেনা।

বর্তমান সময়ে পর্নোগ্রাফির আসক্তি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীর মধ্যে ভয়াবহ বিস্তার লাভ করেছে। অধিকাংশ দেশী-বিদেশী পর্নোগ্রাফি দেখেছে এবং সুযোগ পেলেই দেখে। তাদের বেশিরভাগই মোবাইলে অন নেটে এসব দেখে। যাদের নিজেদের স্মার্ট মোবাইল ফোন নেই তারা বন্ধুদের সঙ্গে পথে আসা যাওয়া, আড্ডা দেয়া বা খেলার ফাঁকে এসব দেখেন। শুধু তাই নয়, শেয়ার ইট, ব্লু টুথ ছাড়াও নানাভাবে তারা এগুলো একে অন্যের সঙ্গে শেয়ার করে। শুধু ভিডিও নয় অডিওতেও ছড়িয়ে পড়েছে অন্ধকারাচ্ছন্ন এই নীল জগত। কানে হেডফোন লাগিয়ে ইউটিউবেই শিক্ষার্থীরা অডিও আকারে শুনছে চটি নামে পরিচিত অশ্লীল গল্প। আকর্ষণ বাড়াতে আবেদনময়ী নারী কণ্ঠে পাঠ করা হচ্ছে যৌনতার গল্প। ঘরের সন্তানটি সবার সামনে বসেই কৌশলে শুনতে সেই কাহিনী। কেউ যাতে বুঝতে না পারে সেজন্য ইউটিউব চ্যানেলে ভাসছে অন্যকোন শিক্ষামূলক বা ফুটবল ও ক্রিকেট খেলার ছবি, অন্যদিকে অডিওতে চলছে অশ্লীল গল্প পাঠ। কানে হেডফোন লাগিয়ে শোনার কারণে কাছে এসেও কেউ দেখে মনে করবে আসলে ছেলে বা মেয়েটি হয়ত শিক্ষামূলক ভিডিও বা খেলা দেখছে। এটির বিস্তার এখন কেবল স্কুল কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই, এটি ভয়াভহ রূপে ছড়িয়ে পড়েছে লেখা-পড়া বন্ধ বখে যাওয়া ছেলে মেয়ে, এমনকি পরিবারের কর্তাকর্তীদের মাঝেও ছড়িয়ে পড়েছে পর্নোগ্রাফির ভয়ানক ছোবল। পরিনতিতে দেখো দিয়েছে পরকীয়া, বাড়ছে বিবাহবিচ্ছেদ, ভেঙে তছনচ হয়ে যাচ্ছে অনেকেরই সাজানো সংসার।

সংবাদপত্রে প্রকাশিত বিভিন্ন সমীক্ষায় জানা যায়, হাতের মুঠোয় থাকা স্মার্টফোনের সুবাদে পর্নোগ্রাফি হয়েছে আরও বেশি সহজলভ্য। প্রযুক্তির অনিয়ন্ত্রিত ব্যবহারের কারণে অনলাইনে প্রবেশ করলেই দেখা যাচ্ছে দেশ-বিদেশের নানা ধারার পর্নোগ্রাফি। কিশোর মানসে ভীষণভাবে প্রভাব ফেলছে বিকৃত বাজে কনটেন্ট এর দৃশ্য। এই আসক্তি শিশুদের মাঝে উস্কে দিচ্ছে যৌন সহিংসতা, বাড়ছে অপরাধপ্রবণতা। মনোযোগের অভাব ঘটছে পড়াশোনায়। ঘটছে সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধের অবক্ষয়। লুপ্ত হচ্ছে বিবেকবোধ। দৈনন্দিন অন্য কাজের প্রতি বেড়ে যাচ্ছে অনাগ্রহ।

বাংলাদেশে স্থানীয় পর্যায়ে চারভাবে পর্নোগ্রাফি তৈরি হয় –

যেটা আমাদের ধারনার বাহিরে।
আমাদের নিজের কারনেই যেটা হয়ে থাকে।

১. নারী-পুরুষের সম্পর্কের ভিডিও বা অডিও একজনের অজান্তে অন্যজন ধারণ করে৷

২. উভয়ের সম্মতিতে ভিডিও, অডিও বা স্টিল ছবি তোলা হয় গোপন রাখার শর্তে৷ পরে যে কোনো একজন তা প্রকাশ করে দেয়৷

৩. নারী-পুরুষের অজান্তে তাদের ডেটিং প্লেস ঠিক করে দেয়া ব্যক্তির দ্বারা এবং

৪. বাণিজ্যিকভাবে পেশাদারদের তৈরি পর্নোগ্রাফি৷

তাই একসকল অবৈধ প্রেম নিষিদ্ধ করা উচিত। পরিবার,স্কুল,কলেজের সবাইকে সতর্ক হওয়া উচিত।

তবে বাংলাদেশে অনলাইনের বাইরে সরাসরি পর্নোগ্রাফি তৈরি এবং তা বিক্রির উদাহরণ আছে৷

পর্ন আসক্তি হতে মুক্তির উপায়ঃ-

১। পর্নগ্রাফি যত দেখবেন তত ভোগবেন, এই অভ্যাস থেকে ফিরে আসার প্রতিজ্ঞা পারলে আজ থেকেই করে নিন।

২। মেয়েদের স্পর্শ কাতর অঙ্গগুলো লুকিয়ে লুকিয়ে দেখার অভ্যেস থাকলে বাদ দিন। এটা পর্নোগ্রাফি দেখার আকাঙ্খা বাড়িয়ে দেয়।

৩। বাচ্চা থেকে বুড়ো সবাই কমবেশি প্রর্নোগ্রাফি দেখে থাকে স্মার্টফোনের মাধ্যমে। তাই স্মার্টফোনে টাকা অথবা এমবি খরচ করে পর্নোগ্রাফি না দেখে, এটা সার্চ করতে পারেন কীভাবে বুড়ো বয়সেও যৌবন ধরে রাখা যায়।

৪।বিয়ে করে বউকে নিয়ে সুখি থাকতে চাইলে, পর্ন দেখা থেকে নিজেকে বিরত রাখার চেষ্টা করুন।

৫। পর্ন দেখে নিজ দেহের সাথে নিয়মিত ব্যাভিচার করতে থাকলে, হতে পরে আপনি একসময় সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষমতাটুকুও হারিয়ে ফেলতে পারেন। অতএব পর্ন দেখা থেকে সাবধান।

ইসলামের দৃষ্টিতেঃ

ইসলাম অশ্লীল কাজ হিসেবে ব্যভিচারকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। এ অপরাধের শাস্তি সম্পর্কে আল্লাহ বলেন, ‘ব্যভিচারিণী নারী এবং ব্যাভিচারী পুরুষ; তাদের প্রত্যেককে একশত বেত্রাঘাত কর। আল-কুরআন ২৪:২। আল্লাহ লজ্জাস্থান হিফাজতকারীকে ক্ষমা করার ঘোষণা দিয়েছেন। আল্লাহ বলেন, ‘যৌনাঙ্গ হিফাজতকারী পুরুষ ও যৌনাঙ্গ হিফাজাতকারী নারী; আল্লাহর অধিক যিকিরকারী পুরুষ ও যিকিরকারী নারী তাদের জন্য আল্লাহ প্রস্তুত রেখেছেন ক্ষমা ও মহাপুরস্কার। ‘আল-কুরআন, ৩৩:৩৫’ তাই আল্লাহ ব্যভিচারকে শুধু নিষিদ্ধই করেননি; বরং ব্যভিচারের নিকটবর্তী হতেও নিষেধ করেছেন। তিনি বলেন

‘ব্যভিচারের কাছেও যেয়ো না। নিশ্চয় এটা অশ্লীল কাজ এবং মন্দ পথ। আল-কুরআন, ১৭:৩২।

সুতরাং পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইট ব্রাউজিং করাও নিষিদ্ধ। কেননা মুসলিমদের সর্বসময় দৃষ্টি অবনত করার আদেশ করা হয়েছে যেন সে অন্য কারো গোপন অঙ্গ দেখা থেকে বিরত থাকে।’

আমাদের দেশের অনলাইন ও অফলাইনের সকল মিডিয়া অফ করে দেয়া উচিত। তাহলেই এই অশ্লীল কাজ থেকে যুব সমাজকে রক্ষা করা যাবে।

লেখকঃ তাসফীর ইসলাম (ইমরান) শিক্ষার্থীঃ সার্ভে ইঞ্জিনিয়ারিং।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | যমুনাপ্রতিদিন.কম

Theme Customized BY LatestNews