1. postmaster@deliveryforfun.com : deltonsun :
  2. gertrude@gameconsole.site : hiltonsoutherlan :
  3. nelianjani34067@gmail.com : ignaciomounts7 :
  4. carrington@miki8.xyz : imayfe2724819 :
  5. admin@zahidit.com : Publisher :
  6. bfniibdsavg@rbufuo.xyz : kenchristenson :
  7. nihal.sultanul@gmail.com : Jamuna Protidin : নিউজ এডিটর
পাইকগাছায় আ'লীগ নেতা ইকরামুলের চাঁদখালী ইউপি নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী » Jamuna Protidin
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ১২:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৭মার্চ উপলক্ষে নড়াইল জেলা পর্যায়ে কবিতা আবৃত্তিতে প্রথম হয়েছে নাজিফা জান্নাত সৃষ্টি মান্দা থানা পুলিশের আয়োজনে ৭ই মার্চ উদযাপন মান্দা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন নড়াইলে প্রস্তাবিত ‘চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া উপজেলা’ বাস্তবায়নের দাবিতে মানবন্ধন এবং সমাবেশ নড়াইলে ১৫ লিটার মদ ও ইয়াবাসহ আটক ৩ জুবায়েদ হাসানের “নিঃশেষ” ছোট্ট সোনামনি তাছনিয়ার জন্মদিন পালিত নাগরপুরে ৭ ও ২৬ মার্চ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে বাঘা প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা রাজশাহীতে গ্রামীণ মানব সমাজ কল্যাণ সংস্থার অফিস উদ্বোধন

পাইকগাছায় আ’লীগ নেতা ইকরামুলের চাঁদখালী ইউপি নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী

মোঃ ফসিয়ার রহমান,পাইকগাছা(খুলনা)
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
  • ৬৩ বার পঠিত

পাইকগাছা উপজেলার চাঁদখালী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী আ, লীগ নেতা ও ব্যবসায়ী জি এম ইকরামুল ইসলামের সৌজন্য সাক্ষাৎকারে জিএম ইকরামুল ইসলাম বলেন।আমি জি এম ইকরামুল ইসলাম , পিতা মৃত জি এম শাহাবান আলী,মাতা -মেহেরুন্নেসা ,গ্ৰাম-গজালিয়া , ইউনিয়ন-চাদখালী পাইকগাছা, খুলনা।১৯৭০সালে ৫ফেব্রয়ারী মধ্যে বিত্ব মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন।

শৈশবে শুনেছি আমার পিতা মাতার মুখে ৫২ ভাষা আন্দোলন,৭০ নির্বাচন,৭১সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনেছি।রাজনীতির কথা বললে তিনি বলেন আমি ১৯৮৮ সালে আমার গ্ৰাম হইতে পাইকগাছা উপজেলা শহীদ এম এ গফুর স্মৃতি সংঘের একজন ফুটবল খেলোয়াড় হিসেবে যোগদান করে পরিচিত শুরু করি।

১৯৯১ সালে আ, লীগ উপজেলা শাখার সাবেক আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম স ম ইউসুফ নানার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগে সামিল হই ।১৯৯৬ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে জয়ী সক্ষম হই।

১৯৯৭ সালে পাইকগাছা পৌরসভার যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হই।২০০১ সালে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য লাভ করি।২০০৪ সালে উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হই।

২০০৪ সাল থেকে ১০ আগষ্ট হতে ২০০৮ সালের ১৩ আগষ্ট পর্যন্ত উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দায়িত্ব পালন করে পৌরসভা সহ ১০ ইউনিয়নের কমিটি গঠন করতে সক্ষম হই।২০০৫ সালে ৪দলীয় জোট সরকারের আমলে মিথ্যা ও হয়রানি মামলার স্বীকার হই।

২০০৮ সালে জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এডঃ সোহরাব আলী সানাকে নৌকা প্রতীক বিজয়ী করার জন্য দলীয় নেতা কর্মী নিয়ে গনসংযোগ ও ভোট প্রার্থনা করে বিজয় লাভ করি।

২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি সদস্য ‌২০০১সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নীল নকশা জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পরাজয়ের পর নেতা কর্মীদের নিপীড়ন ,নির্যাতন , হুমকি মোকাবেলায় দলকে সুসংগঠিত করি।

দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে ব্যক্তিগত ভাবে আর্থিক সহযোগিতা করে আসছি।২০০৭ সালে ১/১১ সময় রাজনৈতিক দল মাঠ ছেড়ে চলে যায় সেই সময় ১২/১৪ জন নেতাকর্মী নিয়ে রাজপথে মিছিল করেছি ।

সামাজিক কাজ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন – ঘুর্নিঝড় সিডর,আয়লা, বুলবুল,আম্পানে দক্ষিণ জনপদ লন্ডভন্ড হয়ে যায় সে উদ্ধার তৎপরতা,আশ্রয়হীন ও অনাহার পরিবার কে আমার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে সাধ্যমত সাহায্য করে আসছি। এছাড়া মহামারী করোনা ভাইরাস এর সময় জনসচেতনতার লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ,হ্যান্ড স্যানেটাইজার,মাক্স সহ খাদ্য সহায়তা দিয়েছি।

বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ঈদ,পূজা,ও অসুস্থ ব্যক্তিদের সহোজগীতা করে আসছি।২০১৬ সালে আমার চাঁদখালী ইউনিয়নে নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চেয়ে পাইনি ,তারপরও দলের সিদ্ধান্ত কে স্বাগত জানিয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়েছি ।

২০১৮ সালে জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু ও ২০১৯ সালে উপজেলা নির্বাচনে আমার ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রধান দায়িত্ব হিসেবে দলীয় নেতা কর্মী সংগে নিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছি।

পরবর্তীতে ২০২০ সালে উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে আমার দায়িত্ব থাকা অবস্থায় নৌকা প্রতীক বিজয়ী হয়। আমি আ, লীগের কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা কমিটির সকল ঘোষিত কর্মসূচি অংশগ্রহণ করে আসছি।

রাজনীতির পাশাপাশি আর কি করেন- এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন ,রাজনীতি পাশাপাশি আমার উপজেলা সদরে মেহেরুন্নেসা এন্টারপ্রাইজ ও গজালিয়া তাজীন মৎস খামার রয়েছে।

দলীয় মনোনয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান হয়ে আপনি কি করতে চান- দলীয় মনোনয়ন পেলে চেয়ারম্যান হতে পারবো আমি আশা বাদী,আর চেয়ারম্যান হলে চাঁদখালী ইউনিয়ন মাদকমুক্ত,জংগিবাদ, দূর্নীতি, সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা, দারিদ্র্য ও নিরক্ষর মুক্ত,সুখী-সমৃদ্ধশালী মডেল ইউনিয়ন গড়তে বলিষ্ট ভুমিকা রাখবো,অসাম্প্রদায়িক সমাজ ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার কারিগর জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার করছি।

তিনি আরো বলেন, আমি শাসক হতে চাই না, আমি জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই। আমি চাঁদখালী তথা দলের সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীদের কাছে দোয়া চাই।

এ প্রসঙ্গে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগ জিএম ইকরামুল ইসলাম জানান,আমি অতীতে দলের শুদিনে-দুঃর্দিনে নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের পাশে থেকে দলীয় রাজনৈতিক কর্মকান্ডে সংক্রিয় ভূমিকা পালন করেছি।এখনো করছি ভর্বিষতেও করব ইনশাল্লাহ।

নির্বচনে দলীয় প্রতীকে মনোনয়ন চাইব। আশাকরি জনমত জরীপে সবদিক বিবেচনা করে দলের সভাপতি বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিবেন ।

সর্বশেষ তিনি বলেন দল যে নেতাকে মনোনয়ন দিয়ে নৌকা প্রতীক পাঠাবেন তার পিছনে কাজ করবেন বলে ঘোষনা দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | যমুনাপ্রতিদিন.কম

Theme Customized BY LatestNews