1. butjetis@honeys.be : Akram :
  2. end497@eay.jp : alom :
  3. whomap@macr2.com : Ashif :
  4. postmaster@deliveryforfun.com : deltonsun :
  5. gertrude@gameconsole.site : hiltonsoutherlan :
  6. nelianjani34067@gmail.com : ignaciomounts7 :
  7. carrington@miki8.xyz : imayfe2724819 :
  8. admin@zahidit.com : Publisher :
  9. bfniibdsavg@rbufuo.xyz : kenchristenson :
  10. nihal.sultanul@gmail.com : Jamuna Protidin : নিউজ এডিটর
ইমোতে পরিচয়,দুই সন্তানের জননীর বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়ি অনশন! » Jamuna Protidin
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১০:৩৩ অপরাহ্ন

ইমোতে পরিচয়,দুই সন্তানের জননীর বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়ি অনশন!

বেল্লাল হোসেন বাবু,ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১
  • ৪৯ বার পঠিত

বগুড়া শেরপুরের দুই সন্তান রেখে জহুরা আক্তার জুঁই নামের এক প্রবাসীর স্ত্রী দুই সন্তানের জননী বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে অনশন করছে।

আজ বুধবার (৩১ মার্চ) সকালে মহিপুর বুড়িতলা এলাকায় আহসান হাবীবের বাড়িতে এ অনশন করছে। আহসান হাবীব মহিপুর বুড়িতলা আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে , সে পেশায় একজন যমুনা গ্যাস কোম্পানি লিমিটেডের স্টোর কিপার। জানা যায়,গত ৬ বছর পূর্বে পৌর শহরের শান্তিনগর এলাকার জালাল শেখ এর মেয়ে ও মালয়েশিয়া প্রবাসী মনিরের স্ত্রী জহুরা আক্তার জুই সহ এক ছেলে এক মেয়ে রেখে মালয়েশিয়া যায় মনির।
গত এক বছর পূর্বে মহিপুর বুড়িতলা এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে আহসান হাবীবের সাথে ইমুতে পরিচয় হয়। এরপর থেকে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। স্বামী বিদেশ থাকায় এক পর্যায়ে আহসান হাবিব বিয়ের প্রলোভন দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে।

গত ৯ মার্চ শান্তিনগর জুইের বাড়িতে গিয়ে আবার শারীরিক সম্পর্ক করলে এ ঘটনা জানাজানি হয় । পরকীয়ার বিষয়টি প্রবাসী স্বামী মনির জানতে পেরে মালয়েশিয়া থেকে তার স্ত্রীকে তালাক দেয়। পরে জহুর আক্তার জুই আহসান হাবিব কে বিয়ে করতে চাপ সৃষ্টি করে।

আহসান হাবিব বিয়ে করতে অস্বীকার করায় আজ (৩১ মার্চ) বুধবার সকালে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে অনশন করে।এতে বাড়িঘর তালা দিয়ে আহসান হাবিব ও তার পরিবার পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে জহুরা আক্তার জানান,আমাকে বিয়ে করে স্ত্রীর অধিকার না দিলে আমি এখানে আমরণ অনশন করব।

এ বিষয়ে আহসান হাবীবের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা যায়নি।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত আবুল কালাম আজাদের সাথে কথা বললে তিনি জানান এ বিষয়টি আমার জানা নেই।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | যমুনাপ্রতিদিন.কম

Theme Customized BY LatestNews