1. jamunaprotidin@gmail.com : যমুনা প্রতিদিন : Nihal Khan
  2. info@jamunaprotidin.com : যমুনা প্রতিদিন :
জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদীর বালু রাতের আঁধারে চুরির হিড়িক » Jamuna Protidin
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বান্নাহ’র “মায়ের ডাক” এ কাঁদছে দর্শক র‍্যাব-৫ সিপিসি-২ নাটোরের অভিযানে আলামতসহ ৫ চাঁদাবাজ সন্ত্রাসী আটক ইভ্যালিতে ১ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের ঘোষণা যমুনা গ্রুপের “একটি গ্রাম, একটি পাঠাগার!” রাজনৈতিক রোষানলে বগা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিনে সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের দোয়া মাহফিল কুড়িগ্রামে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্মদিন পালন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ,নিউক্লিয়ার মেডিসিন খাতে যৌথ গবেষণায় আগ্রহ প্রকাশ সাঁড়ার সাবেক চেয়ারম্যান জার্জিস হোসেনের মৃত্যুতে এমপি নূরুজ্জামান বিশ্বাসের শোক কালীগঞ্জে লকডাউনে কিস্তি আদায়,এনজিওকে জরিমানা

জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদীর বালু রাতের আঁধারে চুরির হিড়িক

প্রতিনিধির নাম
  • প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, ২২ জুন, ২০২১
  • ৭৯ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদীর বালু রাতের আঁাধারে চুরির হিড়িক পড়েছে। স্থানীয়রা সুত্রে জানা যায়, গত ৩ বছর ধরে কুশিয়ারা নদীতে উন্নত মানের ছোট আস্তর বালু পাওয়া যাচ্ছে।

জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগঁাও, আশারকান্দি ও রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের আওতাধীন এক এক করে ৮/১০টি বিশাল আকারের বালুচর জেগে উঠেছে। এসব বালুচরকে বালু মহাল ঘোষণা দিয়ে বৈধভাবে ইজারা দেয়া হলে সরকার বড় অংকের রাজস্ব পেত।

অভিযোগ উঠেছে ইজারা না দেয়ায় ও তদারকির অভাবে অরক্ষিত অবস্থায় থাকায় কোটি কোটি টাকার এসব বালু সম্পদ বালু খেকো চোরেরা রাতের আধারে চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। এতে সরকার বড় অংকের রাজস্ব প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এদিকে গত প্রায় ২ সপ্তাহ ধরে নির্মাণাধীন রাণীগঞ্জ সেতুর এপ্রোচ সড়ক ও টোল প্লাজা ভবন নির্মাণের জন্য বালু দেয়া চলছে। মাত্র সাড়ে ৭ টাকা ফুট দরে লাখ লাখ ফুট বালু দিচ্ছেন যুবলীগ নেতা সালেহ আহমদের নেতৃত্বে একটি বালু খেকো সিন্ডিকেট।

অথচ এসব ছোট আস্তর বালু বাজারে কমপক্ষে ৩০ টাকা ফুট দরে বিক্রি হচ্ছে বলে বালু ব্যবসায়ীরা জানান। এসব বালু দেয়ার জন্য রাণীগঞ্জ বাজার থেকে দক্ষিণে কুশিয়ারা নদীতে বসানো রয়েছে একটি আনলোড মেশিন। এ মেশিনে নৌকায় বালু এনে দেয়া হয়। এ মেশিন থেকে প্রায় কয়েক হাজার ফুট পাইপ লাইন টানা হয়েছে। পাইপের শেষ মাথা এসে পড়েছে কুশিয়ারা নদীর উপর নির্মাণাধীন রাণীগঞ্জ সেতুর অপারের এপ্রোচ সড়কের পাশে থাকা খাদে। এ পাইপ লাইন দিয়ে আসা বালু খাদের কিছু অংশ ভরাট হয়েছে।

এ নিয়ে গত কয়েক দিন আগে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে বালু খেকো সিন্ডিকেটের দৌড়ঝঁাপ শুরু হয়। তারা সংবাদটি ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

যদিও বালু খেকো সিন্ডিকেটের দাবি, তারা মৌলভীবাজারের মনু নদী ১৫ বালু মহালের ইজারাদার হায়দর আলীর কাছ থেকে বালু কিনে এনে ভতুর্কি দিয়ে বিক্রি করছেন। তারা কুশিয়ারা নদী থেকে বালু উত্তোলন করছেন না।

তবে স্থানীয়দের অভিযোগ তারা রাতের আধারে কুশিয়ারা নদী থেকে বালু উত্তোলন করে মৌলভীবাজারের বালু বলে বিক্রি করছেন।

মৌলভীবাজারের কাজিরবাজার এলাকায় অবস্থিত মনু নদী ১৫ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, নদীতে কোন বালু নেই। নেই কোন ড্রেজার মেশিন। এ সময় মনু নদী ১৫ অংশের সাবেক ইজারাদার মনাই মিয়া বলেন, এ নদীতে এখনো কোন বালু আসেনি। বর্ষায় প্রচন্ড পাহাড়ি ঢল হলে নদীতে বালু আসে। এবার নদীতে এখনো ঢল আসেনি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখানের কাগজ দেখিয়ে অন্যস্থানের বালু বিক্রি করা হচ্ছে। যা তদন্ত করলেই আসল সত্য বেরিয়ে আসবে। তখন স্থানীয় জনতারাও এভাবে তাদের মতামত ব্যক্ত করেন। তবে চেষ্টা করেও বর্তমান ইজারাদার হায়দর আলীকে খোঁজে পাওয়া যায়নি।

মনু নদীর ইজারার কাগজ দেখিয়ে কুশিয়ারা নদী থেকে বালু উত্তোলন করছে ওই প্রভাবশালী বালু খেকো সিন্ডিকেট। প্রশাসন ও জনগণের চোখে ধুলো দিয়ে দেদারছে চালিয়ে যাচ্ছে বালু চুরির মহোৎসব। তা দেখার যেন কেউ নেই।

সরকারি এসব বালু সম্পদ রক্ষায় সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রতি দাবি জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।




সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ







© All rights reserved © 2021 

এই সাইটে নিজম্ব সংবাদ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি।তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।

Theme Customized BY Sky Host BD