যমুনা প্রতিদিন
ঢাকাবুধবার , ২৮ এপ্রিল ২০২১
  1. English
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরি
  8. ছবিঘর
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. ধর্ম
  14. নারী ও শিশু
  15. প্রবাসের কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঝুঁকিপূর্ণ সেতু,মৃত্যু ঝুঁকি নিয়েই পাড়ি দেয় হাজারো জনতা

যমুনা প্রতিদিন
এপ্রিল ২৮, ২০২১ ৮:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আব্দুল্লাহ আল-আমিন,শেরপুর:-

শেরপুরের নকলা উপজেলার ৮ নং চর অষ্টধর ইউনিয়নের নারায়ণখোলা ঘাটসংলগ্ন ঝুঁকিপূর্ণ সেতুটি দিয়ে ব্যবসা, চাকুরীসহ বিভিন্ন কাজে প্রতিদিন প্রায় হাজারেরও অধিক মানুষ কে ব্রহ্মপুত্র নদী পাড়ি দিয়ে জীবনের তাগিদে চলাচল করতে হয়।

২০১৪ সালে প্রায় ২৬ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে এলজিইডির তত্ত্বাবধানে নির্মিত হয় এই ব্রিজ। যা গত বছর বন্যায় ৩ পিলারের মধ্যে ২ পিলার ভেঙে এখন তা এক পায়ে হেলে দাঁড়িয়ে আছে।

দুই পাশের সংযোগ সড়ক বিধ্বস্ত হয়ে মাটি সরে যাওয়ায় কাঠের সংযোগ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছেন হাজারো মানুষ । স্থানীয়দের ধারণা, এবার বন্যায় পানির সাথে হয়তো ভেসে যেতে পারে ব্রিজটি।

উল্লেখ্য,এখানে প্রত্যেক সপ্তাহে প্রায় ২-৩টি গাড়ি উল্টে ব্রিজের নিচে পরে যায়। গাড়িতে বেশি মালামাল থাকলে নামিয়ে মাথায় করে নিয়ে পার করতে হয় এবং যেকোন সময় ব্রিজটি ভেঙে বড় কোন দুর্ঘটনা ঘটে হতে পারে মানুষের মৃত্যুর কারণ।

নারায়খোলা ঘাটের স্থানীয় ইজারাদার লাভলু মিয়া জানান,প্রায় ১ লক্ষ টাকা ব্যয়ে যাত্রীদের সুবিধার্থে আমাদের ব্যক্তিগত টাকা দিয়ে ব্রিজটির দুই পাশে বাঁশ ও কাঠ দিয়ে তিনটি কাঠের সেতু নির্মাণ করা হয়েছে যদিও সরকারী ভাবে ঘাট ইজারা বাবদ দেয়া হয়েছে ১৬ লক্ষ ১০ হাজার টাকা।

নৌকার মাঝি সরোয়ারদী বলেন প্রতিদিন নকলা হতে ময়মনসিংহ ,পিয়ারপুর,মুক্তাগাছা,জামালপুর সহ বিভিন্ন অঞ্চলের প্রায় দেড় থেকে ২ হাজার লোকের চলাচল এই সড়ক পথে। ঈদের সময় চাপ থাকে কয়েক গুন বেশি কারন পিয়ারপুর রেল স্টেশন থেকে নকলা নালিতাবাড়ী সহ বিভিন্ন অঞ্চলের যাত্রীরা এই সড়ক পথ ব্যবহার করে গন্তব্যে পৌঁছায়।

এ বিষয়ে নকলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমান যাত্রীদের ঝুঁকির কথা স্বীকার করে বলেন আপাতত ঐ ভাঙ্গা ব্রিজটির দুপাশে মাটি ভরাট করার জন্য চেয়ারম্যান কে বলা হয়েছে এবং ব্রিজটি ভেঙে নতুন ব্রিজ করার জন্য ইতিমধ্যে প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসারের সাথে কথা হয়েছে এবং তারা সরেজমিনে ঘুরে দ্রুত পদক্ষেপ নিচ্ছেন বলেও তিনি জানিয়েছেন।

প্রিয় পাঠক আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর সরাসরি জানাতে ই-মেইল করুন নিম্নের ঠিকানায়  jamunaprotidin@gmail.com