যমুনা প্রতিদিন
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৯ এপ্রিল ২০২১
  1. English
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরি
  8. ছবিঘর
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. ধর্ম
  14. নারী ও শিশু
  15. প্রবাসের কথা

বোরহানউদ্দিনে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী নির্যাতনের ঘটনার মামলায় বিজিবি সদস্য আটক

সাইফুল ইসলাম আকাশ,নিজস্ব প্রতিনিধি
এপ্রিল ২৯, ২০২১ ১:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

যৌতুকের টাকা না দেয়ায় বিজিবি সদস্য আল আমিন কর্তৃক ৬ মাসের অন্ত: সত্বা স্ত্রী মহিমা খানম (২০) কে নির্যাতন করে বাম চোখ নষ্ট করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় বোরহানউদ্দিন থানায় অভিযোগ দিলে বুধবার রাতেই থানা পুলিশ ওই বিজিবি সদস্যকে আটক করেন এবং আজ তাকে কোটে প্রেরণ করা হয়।

আটককৃত বিজিবি সদস্য আল আমিন বোরহানউদ্দিন উপজেলার সাচড়া ৩নং ওয়ার্ডের দেউলা শিবপুর গ্রামের হেলালউদ্দিন এর ছেলে।

মামলা সুত্রে জানা যায় গতকাল মেয়ের বাবা জাহাঙ্গীর আলম মাষ্টার জীবনের নিরাপত্তা ও স্বামীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে প্রতিকারে বোরহানউদ্দিন থানায় বুধবার একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,অভিযুক্ত স্বামী আল আমিন বাংলাদেশ বিজিবিতে কর্মরত একজন সদস‍্য।

তার সাথে লালমোহন উপজেলার দেবীরচর ইউনিয়নের বগিরচর এলাকার জাহাঙ্গীর আলম মাষ্টারের কন্যা মহিমা খানম এর সাথে ৩ বছর আগে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকেই আল আমিন ও তার পরিবারের সদস্যরা যৌতুকের দাবিতে বিভিন্ন সময় তার মেয়েকে শারিরীক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করত।

মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে তাদেরকে পর্যায়ক্রমে ৭ লাখ টাকা প্রদান বাবা।দিনাজপুর ফুলবাড়িয়া বিজিবি ক্যাম্পে বসবাসকালেও মেয়েকে মারধর করেন তার জামাতা আল আমিন ।বিষয়টি নিয়ে ওই ক্যাম্পে তিনি অভিযোগ দেন।
তখন আর নির্যাতন করবে না মর্মে প্রতিশ্রুতি দেয় আল আমিন।

মেয়ে মহিমা বর্তমানে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।
আল-আমিন কয়েকদিন যাবত পুনরায় ২ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য স্ত্রী কে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে।

মহিমা ওই টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে
আল -আমিন ও তার পরিবারের সদস্যরা মেয়েকে বেধড়ক মারধর করেন এবং গর্ভের অনাগত সন্তানকে মেরে ফেলার হুমকি দেন।

মোবাইল ফোনে মেয়ে বাবাকে বিষয়টি অবগত করেন। মহিমার বাবা বলেন,২৮ এপ্রিল মেয়েকে আমার বাড়িতে আনার জন্য আমার ২ সন্তান নিয়ে জামাই বাড়িতে যাই।

তখন আল আমিন ও তার পরিবারের সদস্যরা তাকেও মারধর করে।পরে গুরুতর আহত অবস্থায় মহিমা খানমকে উদ্ধার করে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অন্যদিকে বিজিবি সদস্য আল আমিনের বাবা হেলাল উদ্দিন ফরাজির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ছেলেকে বিয়ের সময় মোটরসাইকেল দেওয়ার কথা ছিল।কিন্তু তারা মোটরসাইকেল না দিয়ে নগদ ১ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা দিয়েছে। সেখানেও ১০ হাজার টাকা কম দিয়েছে।

বোরহানউদ্দিন থানার (ওসি) মাজহারুল আমিন বিপিএম প্রতিবেদক কে জানান,থানায় মামলা হয়েছে।আসামিকে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

প্রিয় পাঠক আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর সরাসরি জানাতে ই-মেইল করুন নিম্নের ঠিকানায়  jamunaprotidin@gmail.com