যমুনা প্রতিদিন
ঢাকাশুক্রবার , ৩০ এপ্রিল ২০২১
  1. English
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরি
  8. ছবিঘর
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. ধর্ম
  14. নারী ও শিশু
  15. প্রবাসের কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যশোরে প্রতিবন্ধী ও পথশিশুদের মাঝে ঈদের নতুন পোশাক বিতরণ মিম ফাউন্ডেশন’র

যমুনা প্রতিদিন
এপ্রিল ৩০, ২০২১ ৮:৫৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শামীম আহসান,যশোরঃ

যশোরে প্রতিবন্ধী ও পথশিশুদের মাঝে ঈদের নতুন পোশাক বিতরণ করেছে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা মিম ফাউন্ডেশন নামে নতুন সমাজ কল্যাণ সংস্থা সংগঠন পরিচালক মানবাধিকার কর্মী সাংবাদিক মোঃ নাজমুল হুসাইন রানা।

শুক্রবার চৌগাছা উপজেলার সহ পাশ্ববর্তী গ্রামের ২৫ জন শিশুকে ঈদের পোশাক, মেহেদী ও করোনা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সামগ্রী। সংগঠনের বিশ সদস্যদের চাঁদার টাকায় সহায়তা সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত স্থানীয় ইউপি মেম্বর নুরুল ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাসের এই সংকটময় সময়ে গ্রামের প্রতিবন্ধী ও পথশিশুদের অবস্থা অনেক খারাপ। তারা অনেক প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে আমাদের সমাজে বেঁচে আছে। আমাদের উচিত তাদের প্রতি সহানুভূতি ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়া।

তিনি বলেন, আমাদের ছোটো ভাই সাংবাদিক নাজমুল হুসাইন রানা বৃহস্পতিবার সকালে তার শরিল অসুস্থতার কারণে উপজেলা পল্লবী ক্লিনিকে ব্লাড নেওয়ার জন্য আসে।

এসময় হঠাৎ করে দেখে এক বাচ্চা তার মায়ের কাছে ঈদের মার্কেট করার জন্য বাইনা ধরে সংসারে অভাব থাকার জন্য এবার তারা বাচ্চার মার্কেট করতে না পারার জন্য বাচ্চা টা এবার ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারবে না।

এই জন্য সে এই সংগঠন গড়ে তুলেছে নিজের উদ্যোগে চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধু দের কে সাথে নিয়ে।

এর আগেও প্রচুর শীতের সময় নিজ তহবিল থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছিল এবার রমজান উপলক্ষে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছে প্রায় দুইশো পরিবারের মধ্যে ধন্যবাদ জানাই আমাদে ছোটো ভাই সাংবাদিক নাজমুল হুসাইন রানা কে এই বৃহৎ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য। আমি দোয়া করি প্রতি বছরই এই এলাকার প্রতিবন্ধী ও পথশিশুদেরকে যেনো,এভাবেই নতুন পোশাক ও খাদ্যসহ প্রয়োজনীয় সকল সহযোগিতা করে আসতে পারে।

মিম ফাউন্ডেশন সমাজ কল্যাণ সংস্থার পরিচালক নাজমুল হুসাইন রানা বলেন, গরিবের ছেলে হয়ে আমি বুঝতে পারছি কষ্ট কী গরিবের আর্তনাদ কেও শুনে না।

খুদার যন্ত্রণা কতোটা কঠিন আমি যানি আমি চাইনা আমার মতো করে আমাদের আগামী দিনের ভবিষ্যৎ এই বাচ্চাদের জীবন থেকে হাসি ফুরিয়ে যাক আমি চাই এরা যেনো সোব সময় হাসিমুখে বাচতে পারে এবার ঈদে আমি নতুন পোশাক পরিধান করবো না। না যানি এই ঈদে কতো শিশু খালি গায়ে রাস্তার পাশে বসে আছে কেহ আবার হাজার টাকার পোশাক তৈরি করে তাদের পাশদিয়ে চলে যাচ্ছে।

আফসোস হয় টাকা ওয়ালারদের জন্য তারা কি পারেনা তাদের পাশে বাচ্চাদের কে একশো টাকা দিয়ে একটা পোশাক কিনে দিতে।

নাজমুল হুসাইন রানা আরো বলেন আমার ইচ্ছে আছে এবারের মতো প্রতি বছরই ঈদ, পূজাসহ বিভিন্ন উৎসবে প্রতিবন্ধী ও পথশিশুদের সহযোগিতা করে যাবো।

তারাও আমাদের সমাজের একটি অংশ। তারা যে অবহেলিত নয় সে বিষয়গুলো বোঝানোর চেষ্টা করবো। করোনাভাইরাসের এই সংকটময় সময়ে সবার উচিত নিজ জায়গা থেকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া। নাজমুল হুসাইন রানা তার নিজের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন দোয়া চেয়ে বলেন আগামী দিনগুলো যেনো সবার পাশে থাকতে পারে মিম ফাউন্ডেশন সমাজ কল্যাণ সংস্থার সমস্ত সদস্যগন

প্রিয় পাঠক আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর সরাসরি জানাতে ই-মেইল করুন নিম্নের ঠিকানায়  jamunaprotidin@gmail.com