যমুনা প্রতিদিন
ঢাকাশনিবার , ৮ মে ২০২১
  1. English
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরি
  8. ছবিঘর
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. ধর্ম
  14. নারী ও শিশু
  15. প্রবাসের কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দালাল সিন্ডিকেটের কবলে সরকারী হাসপাতাল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
মে ৮, ২০২১ ৮:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

দালাল, সিন্ডিকেট, রোগী ভাগিয়ে নেয়া ও প্রতারণার ভয়াবহ অবস্থা সরকারী হাসপাতাল গুলোতে।রোগী বহনকারী এ্যাম্বুলেন্সের অর্ধেক ভাড়া নিয়ে নেয় সিন্ডিকেটগুলো, না দিলে মারধর ও ভাগিয়ে দেয়া হয় এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভারদের।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যেন এগুলো দেখেও না দেখার ভান করে থাকে। অন্যদিকে প্রসাশন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থারও তেমন কোন তৎপরতা নাই।এসব দালাল ও সিন্ডিকেট রোগীর সাথে থাকা স্বজনদের পকেট থেকে টাকা-পয়সা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার মত ঘটনাও ঘটাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

অন্যদিকে এসব ভুক্তভোগীরা লাশ নিয়ে বা অসুস্থ রোগীকে নিয়ে এমনিতেই থাকে শোকাতর অবস্থায়।তাই কোথায় অভিযোগ করতে হবে তাও জানে না।

তাছাড়া গ্রাম থেকে আসা রোগীর স্বজনেরা অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না। অভিযোগ রয়েছে লাশ বহনকারী এ্যাম্বুলেন্স ও ফিরতি রোগীদের কাছ থেকে কখনো কখনো দ্বিগুনেরও বেশি ভাড়া আদায় করা হয়।

বিভিন্ন জেলা থেকে আসা এ্যাম্বুলেন্সে ফিরতি রোগী বহন করলে এই সিন্ডিকেট ড্রাইভারের কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নিয়ে নেয়।এটা এখন সব হাসপাতালে বিভিন্ন জেলা থেকে আসা এ্যাম্বুলেন্সের ক্ষেত্রে অলিখিত রেওয়াজে পরিণত হয়েছে।

হাসপাতাল গুলোতে বিশেষ করে সরকারী হাসপাতালে দালাল, সিন্ডিকেট, এ্যাম্বুলেন্স বাণিজ্য, প্রতারণা, চুরি, গ্রামগঞ্জ থেকে আসা রোগীদের ভাগিয়ে নেয়ার ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে অহরহ প্রকাশিত হলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সরকারী হাসপাতালে কঠিন ও জটিল অপারেশন দুরের কথা, নানা অজুহাতে তাদের পরামর্শ দেয়া হয় কোন প্রাইভেট হাসপাতালে যাবার জন্য অথবা সরকারী হাসপাতালের ডাক্তারদের নিজস্ব বা চুক্তিতে থাকা বেসরকারি ক্লিনিকে ভাল ও উচ্চমূল্যে অপারেশনের জন্য। আবার সরকারি হাসপাতালের ঐসকল ডাক্তাররাই সেখানে গিয়ে অপারেশন করেন।

এছাড়াও সরকারি হাসপাতালে সাধারণ রোগ ব্যাধিরও ঔষুধ দেয়া হয় না। ফলে দরিদ্র রোগীদের বাইর থেকেই ঔষুধপত্র কিনতে হয়। সরকারি হাসপাতালের এই করুণদশা দেখার যেন কেউ নাই। সরকারি হাসপাতালে দরিদ্র রোগীরাই বেশি আসেন, তাই তাদের এই অসহায় অবস্থায় কিছুই করনীয় থাকে না।

এক তথ্যে জানা গেছে হাসপাতালের এইসব সিন্ডিকেটের সাথে কোন কোন ডাক্তার-নার্স এমনকি ব্যবস্থাপনা ও প্রসাশনের লোকজনও জড়িত।

প্রিয় পাঠক আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর সরাসরি জানাতে ই-মেইল করুন নিম্নের ঠিকানায়  jamunaprotidin@gmail.com