ঢাকামঙ্গলবার , ২৩ নভেম্বর ২০২১
  1. Entertainment
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম ও জীবন
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. ছবিঘর
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. দেশজুড়ে
  14. নারী ও শিশু
  15. প্রচ্ছদ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বুড়িদহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
নভেম্বর ২৩, ২০২১ ১০:৪২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় বুড়িদহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তৃপ্তিস মন্ডল ও স্কুল গভর্নিং বডির সভাপতি সুজয় প্রামাণিকের বিরুদ্ধে এক ভুক্তভোগী পরিবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

ভুক্তভোগী ফারুক হোসেন উপজেলার কুসুম্বা ইউপির শামুকখোল (বুড়িদহ) গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে ।

মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী ফারুক হোসেন অভিযোগ করে বলেন,আমি দীর্ঘদিন থেকে লিভার রোগে ভুগতেছি।এসময় বুড়িদহ উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়।

তখন গভর্নিং বডির সভাপতি সুজয় প্রামাণিক মেসেঞ্জারে আমাকে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি পাঠায় এবং পরবর্তীতে দেখা হলে আমার স্ত্রীকে চাকরির দিবে বলে অফার করেন। এরপর আমাকে প্রধান শিক্ষকের কাছে নিয়ে গিয়ে চাকরি দিবে মর্মে মৌখিক চুক্তি করেন।তখন আমি আমার স্ত্রী শরিফুল নাহারের ভাইয়ের নিকট থেকে জমি বিক্রির নামে ৬ লক্ষ টাকা নিয়ে আসি।এরপর চুক্তিবদ্ধ টাকা সংগ্রহ করতে না পেরে এক ব্যক্তির নিকট থেকে চওড়া সুদের উপর তিন লক্ষ টাকা গ্রহণ করি।

চাকরির জন্য সংগৃহীত ৯ লক্ষ টাকার মধ্যে সভাপতিকে ৪ লক্ষ এবং প্রধান শিক্ষককে ৫ লক্ষ টাকা দিয়ে চাকরি কনফার্ম করি।টাকা গ্রহণের বেশ কিছু দিন পার হয়ে গেলে তারা আমার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। তখন আমি তাদের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তারা আমাকে এড়িয়ে যান।

এর বেশ কিছুদিন পরে তারা জানান চাকরি দলীয় নেতাকর্মীরা দিবে।এই বলে তালবাহানা শুরু করেন। এখন আমি নিরুপায় হয়ে বিভিন্ন মহলে দ্বারস্থ হলেও এর প্রতিকার মিলছে না।এরপর আমি উপজেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করি।

আমি অসুস্থ ব্যক্তি হওয়ায় আমার পরিবারে জন্য চাকরিটি খুব জরুরী।চাকরিটি হলে আমার অবর্তমানে আমার স্ত্রী দুই কন্যা সন্তানকে নিয়ে জীবন যাপন করতে পারবে। চাকরি না হলে আমার অবর্তমানে স্ত্রী-সন্তানের জীবনে অন্ধকার নেমে আসবে।

এ বিষয়ে গভর্নিং বডির সভাপতি সুজয় প্রমানিক ও প্রধাণ শিক্ষক তিপ্তিস মণ্ডলের সঙ্গে কথা হলে তারা বলেন,অভিযোগটি সম্পন্ন মিথ্যা,ভিত্তিহীন।এ ব্যাপারে তাদের সাথে কোন কথা বা লেনদেন হয়নি।

যেকোনো সংবাদ পাঠান এই ইমেইলে [email protected]