যমুনা প্রতিদিন
ঢাকাশুক্রবার , ১৪ জানুয়ারি ২০২২
  1. English
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলাধুলা
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরি
  8. ছবিঘর
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশজুড়ে
  13. ধর্ম
  14. নারী ও শিশু
  15. প্রবাসের কথা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুরি হওয়া মোবাইল উদ্ধারে সফল কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি শাহ্ কামাল আকন্দ

গোলাম কিবরিয়া পলাশঃ
জানুয়ারি ১৪, ২০২২ ৩:৫৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ্ কামাল আকন্দ পিপিএম (বার) হারানো ও চুরি হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোন জিডির ভিত্তিতে তার অধীনস্তদের দিয়ে একের পর এক উদ্ধারে সফলতা এনে দিচ্ছেন।

প্রতিদিন কোতোয়ালী মডেল থানায় জিডি কৃত হারিয়ে যাওয়া ও চুরি যাওয়া মোবাইল ফোন উদ্ধার করে প্রকৃত মালিক এর হাতে তুলে দিচ্ছেন ওসি শাহ্ কামাল আকন্দ।

জানা গেছে,মাওলানা ফরিদ উদ্দিন নামের এক ব্যক্তি গত সেপ্টেম্বর মাসে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি হারিয়ে ফেলেন। পেশাগত জীবনের নানা তথ্য-উপাত্ত ছিল।তাই মোবাইলটি হারিয়ে হতাশ হয়ে পড়েন।পরে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায়। তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে পুলিশ হারানো মোবাইলটি উদ্ধার করে।

হারানো মোবাইল ফোনটি ফিরে পেয়ে উচ্ছ্বাসিত লুৎফর কবির রুবেল বলেন,মোবাইল ফোনটি হারিয়ে খুব চিন্তিত ছিলাম।অনেক তথ্য উপাত্ত ছিল।পরে এক রকম আশাই ছেড়ে দিলাম।পরে পুলিশ মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে আমাকে খবর দেয়।পুলিশের এমন পেশাদারিত্বে সত্যি অভিভুত হয়েছি।ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই কোতোয়ালী মডেল থানার পুলিশকে।

আরও জানতে পারি শাকিল নামে একজন পেশায় শিক্ষক, তার ব্যবহৃত মোবাইলটি হারিয়ে ফেলেন।অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ছিল।একরকম নিরাশ হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।মনে মনে ধরে নিয়েছেন আর কোনোদিন প্রিয় মোবাইলটি ফিরে পাবেন না।তবে ডায়রি করার ৪ মাসের মধ্যেই কোতোয়ালী থানা থেকে ফোন আসে।

নাম জানতে চেয়ে অপরপ্রান্ত থেকে জানানো হয়,উদ্ধার করা হয়েছে আপনার মোবাইল ফোনটি। থানা থেকে এসে নিয়ে যান।এমন খবরে আনন্দে উদ্বেলিত বলেন,পুলিশ এখন সেবায় অনেক এগিয়েছে।

এদিকে ইয়াছিন আরাফাত নামে এক ব্যক্তি বলেন, আমার হারিয়ে যাওয়া মোবাইল ফোনটিতে অনেক পুরনো ছবি ছিলো।আমার বাবা যিনি এখন দুনিয়াতে নেই।বাবার সাথে আমাদের ভাই বোনদের অনেক ছবি ছিলো।মাঝে মাঝে মোবাইল খুলে ছবি দেখতাম। ভালো লাগতো।

গত আগষ্ট মাসে জরুরী কাজে ব্রীজ মোড়ে আসার পর মোবাইলটি হারিয়ে যায়।খুব কষ্ট পেয়েছিলাম।পরে থানায় ডায়েরি করি।গত কয়েকদিন আগে কোতোয়ালি থানার পুলিশ ফোন করে জানায় আমার মোবাইল ফোনটি ফিরে পেয়েছে।

পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে জানান, টাকা হারিয়ে গেলেও এত কষ্ট পেতাম না মোবাইলটি হারিয়ে যাওয়ার পর যে কষ্ট পেয়েছি।এখন খুব ভালো লাগছে বলে বোঝানো যাবে না।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, গত অক্টোবর,নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসে আনুমানিক ১২০ টি হারানো মোবাইল উদ্ধার করে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। এরমধ্যে এএসআই আমীর হামজা আনুমানিক ৬০-৭০ টি হারানো মোবাইল উদ্ধার করে প্রকৃত মালিকদের হাতে তুলে দিতে সক্ষম হয়।

বিষয়টি নিয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি শাহ্ কামাল আকন্দ বলেন,সেবাই পুলিশের মহান ব্রত।ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আহমার উজ্জামান পিপিএম (সেবা) এর নেতৃত্বে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ ময়মনসিংহে সার্বক্ষণিক নাগরিকদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিন্তকরণে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

একটি মোবাইল হারানোকে আমরা শুধু মোবাইল হিসেবেই দেখি না এর সাথে অনেকের ব্যক্তিগত তথ্য, ছবি, স্মৃতি, আবেগ জড়িয়ে থাকে।তাই এই সংক্রান্ত জিডিগুলো বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা হয়।নাগরিকদের কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদানে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

যেকোনো সংবাদ পাঠান এই ইমেইলে jamunaprotidin@gmail.com