1. jamunaprotidin@gmail.com : যমুনা প্রতিদিন : Nihal Khan
  2. info@jamunaprotidin.com : যমুনা প্রতিদিন :
চিতার কাঠও পাওয়া যাচ্ছে না দিল্লিতে » Jamuna Protidin
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
৫ নং চারঘাট ইউনিয়নের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী ও ব্যাগ বিতরণ রূপগঞ্জে গুড়িয়ে দেয়া হলো বেলদী বাজারসহ অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব থেকে প্রাপ্ত ১০টি ফুটবল রাজশাহী কিশোর ফুটবল একাডেমিকে দিলেন রাসিক মেয়র সুন্দরবনের খরমা নদী থেকে জেলের ভাসমান লাশ উদ্ধার শরৎ হাসি বেলকুচিতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রান বিতরণ করলেন মেয়র সাজ্জাদুল রেজা আওয়ামীলীগ বাংলাদেশের রাজনীতিতে সবসময়ই অত্যন্ত শক্তিশালী ও গুরুত্বপূর্ণ দল -কৃষিমন্ত্রী মৌলভীবাজারে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা পেলেন ৪৯ সাংবাদিক গ্লোবাল বিজনেস সামিটে অংশ নিতে ২৭ সেপ্টেম্বর ১৬ দিনের সফরে দুবাই যাচ্ছেন নিরব জয়পুরহাটে বিশুদ্ধ খাবার দোকানের শুভ উদ্বোধন

চিতার কাঠও পাওয়া যাচ্ছে না দিল্লিতে

যমুনা প্রতিদিন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯৯ বার পঠিত

ক্রমেই ভয়াবহ আকার ধারণ করছে ভারতের করোনা পরিস্থিতি। এই মুহূর্তে রাজধানী দিল্লিতে মৃতদেহ সৎকারের জায়গা পর্যন্ত নেই বলে জানা গেছে ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে।

দেখা যাচ্ছে, সাধারণত দিল্লিতে যত সংখ্যক মৃতের সৎকার হয়ে থাকে, তার থেকে বহুগুণ বেশি মৃতদেহ রোজ আসছে শ্মশান ও কবরস্থানে। গত ১০ দিনে এমনই ঘটনার সাক্ষী দিল্লি। এ পরিস্থিতিতে মৃতদেহ দাহ করার কাঠ ফুরিয়ে গেছে বহু শ্মশানে। কাঠের অভাবে কেয়ারটেকারকে বাধ্য হয়ে বন্ধ করে দিতে হয়েছে শ্মশানের দরজা।

দিল্লির রাস্তায় লোক নেই। মন্দির, মসজিদ, গির্জাও সেভাবে ভর্তি নয়। জনসমাগম শুধুই হাসপাতালগুলোতে। আর সেখান থেকে বেরিয়ে আসা একের পর এক মরদেহ সৎকারে হয়রানি, ভোগান্তি সাধারণ মানুষের। এমনই দাবি করা হয়েছে বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের রিপোর্টে।

করোনার জেরে শ্মশানের জন্য জমি বাড়াতে হচ্ছে দিল্লিতে। আরও ৫০টি নতুন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হয়েছে সৎকারের জন্য। অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্নে ছাড় পাচ্ছে না পার্কিং লটগুলো। দিল্লির গাজীপুরে এমনই পার্কিং লটে চিতা জ্বালানোর বন্দোবস্ত করা হচ্ছে। যে হারে করোনায় দিল্লিতে মৃত্যু মিছিল অব্যাহত রয়েছে, তাতে পরিস্থিতি ক্রমাগত ভয়াবহ হচ্ছে।

শুধু কবরস্থান নয়, মৃত্যুর চাপে একই পরিস্থিতি শ্মশানেই। সেখানেও চিতার আগুন নিভছে না। আরও চিতা রাখার জন্য জায়গা তৈরি করা হচ্ছে।
২০ হাজারের ওপর করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিল্লির নিত্যদিনের ঘটনা এখন। এই পরিস্থিতিতে মৃতের সংখ্যা ৩৫০-এর আশপাশে প্রায় প্রতিদিনের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে।

সূত্র: ওয়ানইন্ডিয়া

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ







© All rights reserved © 2021 

এই সাইটে নিজম্ব সংবাদ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি।তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ,আলোকচিত্র ব্যবহার করা বেআইনি।

Theme Customized BY Sky Host BD