1. jamunaprotidin@gmail.com : jamunaprotidin : Nihal Khan
  2. info@jamunaprotidin.com : Nihal :
দিনাজপুর শিক্ষা জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র অধ্যাপক আমিনুল হক » Jamuna Protidin
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

দিনাজপুর শিক্ষা জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র অধ্যাপক আমিনুল হক

মেহেদী হাসান উজ্জল,ফুলবাড়ী(দিনাজপুর)প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
  • ৩২ বার পঠিত

অত্যন্ত শান্ত কিন্তু গভীর পর্যবেক্ষণ,বোঝাপড়া এবং ভালোবাসা দিয়ে মানুষের মনজয় করা তাঁর চরিত্রের বৈশিষ্ট্য। এই গুন গুলো তাঁর সান্নিধ্যে আসা যে কাউকে মুগ্ধ করে তোলে। তার নাম উচ্চারিত হওয়ার সাথে সাথে ভেসে উঠে আপাদমস্তক একজন আদর্শ শিক্ষকের প্রতিচ্ছবি।

তিনি দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের (সাবেক সচিব) ও দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী সরকারি (অনার্স) কলেজের (সাবেক) অধ্যক্ষ দিনাজপুর শিক্ষা জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র অধ্যাপক মো: আমিনুল হক সরকার।

তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় সুনিয়ন্ত্রিত, সুনির্দিষ্ট, নিখুঁত একজন প্রশাসক এবং শিক্ষাগুরু । ব্যক্তি জীবনে তিনি সহজ সরল, বন্ধুবৎসল, বিনয়ী, কষ্টসহিষ্ণু ও সদাহাস্যোজ্জল একজন মানুষ। সহজেই একজন মানুষকে আপন করে নেয়ার মহৎ গুণ রয়েছে তাঁর ।

পরিবার সুত্রে জানা গেছে, প্রফেসর আমিনুল হক সরকার ১৯৬২ সালের ২৪মে পার্বতিপুর উপজেলার হামিদপুর ইউনিয়নের খলিলপুর সরদার পাড়া গ্রামের মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। বাবা মৃত আছের উদ্দিন সরকার ও মাতা মৃত মাজেদা খাতুনের তিন কন্য ও সাত ছেলের মধ্যে তিনি চতুর্থ সন্তান। অধ্যাপক আমিনুল হক সরকার ছেলে বেলা থেকে ছিলেন গ্রামের অত্যন্ত শান্ত এবং সহজ সরল ধার্মপরায়ন একজন মানুষ । তিনি ২০১৫ সালে সপরিবারে হজ্জব্রত পালন করেন। বর্তমানে তিনি ফুলবাড়ী উপজেলার পৌর শহরের মধ্যগৌরীপাড়া গ্রামে ববসবাস করছেন।

অধ্যাপক আমিনুল হক সরকার ১৯৭৭ সালে রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার বক্সিগঞ্জ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক পাশ করেন।

১৯৭৯ সালে ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রংপুর কারমাইকেল কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ কনে। এরপর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাণিবিদ্যায় স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করে ১৯৮৬ সালের ২০ অক্টোবর দিনাজপুর জেলার সনামধন্য ফুলবাড়ী ডিগ্রি কলেজে শিক্ষকতার মহান ব্রত নিয়ে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। সেই থেকে তাঁর প্রতিভার আলোকচ্ছটায় বি”রণ শুরু হয়। এরপর ২০০১ সালের ৪ জুলাই সহকারি অধ্যাপক হিসেবে যোগদান করেন ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ সরকারি কলেজে।

২০০৭ সালের ১১ মার্চ স্বপদে রংপুর কারমাইকেল কলেজে যোগদান করেন। কারমাইকেল কলেজ থেকে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে ২০০৯ সালে নীলফামারীজেলার ডোমার সরকারি কলেজে উপাধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন।

২০১০ সালের ২১ মার্চ তিনি প্রেষণে (অন ডেপুটেশন) দিনাজপুর মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে কলেজ পরিদর্শক হিসেবে দায়িত্ব পান।

এরপর তিনি ২০১৩ সালের ১৯ জানুয়ারি ফুলবাড়ী সরকারি কলেজে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে যোগদান করেন। ২০১৫ সাল ২৮ মার্চ দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের সচিব হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

২০১৬ সালের ৫ অক্টোবর অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেয়ে জয়পুরহাট জেলার মহিপুর হাজী মহসীন সরকারি কলেজে উপাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। ২০১৮ সালের ৩ জানুয়ারি পুনরায় তিনি দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে প্রেষণে সচিব পদে দায়িত্বভার গ্রহণ করে দক্ষতা ও বিচক্ষণতার সহিত প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করে সুনাম অর্জন করেছেন।

অবসরে যাবার পূর্বে ২০২১ সালের ২০ মে তাঁকে তার নিজ এলাকা দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সরকারি কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্বভার অর্পণ করা হয়। অবশেষে অধ্যাপক মো. আমিনুল হক সরকার শিক্ষার সঙ্গে সুদীর্ঘ কর্মময় জীবনের কক্ষপথে বিচরণ করে শিক্ষা জগতে আলো ছড়িয়ে চলতি বছরের ২৩ মে সফলতা ও সুনামের সহিত চাকরি জীবন শেষে অবসর গ্রহন করেন ।

এ উপলক্ষ্যে ওইদিন দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সরকারি কলেজে টিচার্স কনফারেন্স রুমে কলেজের পক্ষ থেকে তাঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায়ী সংবর্ধণা জানানো হয়।

এসময় এক আবেগময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। আয়োজিত বিদায়ী অনুষ্ঠানে সেদিন উপস্থিত বিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলীগণ অশ্রæ সিক্ত নয়নে বিদায়ী অধ্যক্ষের বর্ণিল কর্মময় জীবনের অনুস্মরণীয়, আদর্শিক নানা দিক তুলে ধরে স্মৃতিচারণ করেন।

ফুলবাড়ীর প্রবিণ শিক্ষকগণ বলেন,তাঁর দীর্ঘকর্মময় জীবনে নিষ্ঠা ও কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি স্বরূপ অনেক সম্মাননা অর্জন করেন তিনি। তাঁর অনেক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, ডীন, বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষ, গবেষক এবং নির্বাহী বিভাগসহ প্রশাসনিক গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করে চলেছেন।

অনেকে দেশের বাহিরেও সুনাম অর্জন করছেন। তিনি অবসরে গেলেও শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং সহকর্মীদের কাছে গভীর ছোঁয়া রেখে গেছেন।

অধ্যাপক আমিনুল হক সরকার শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ব্রত ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্বপালন করলে চাওয়ার থেকেও বড় প্রাপ্তি মিলবে। দেশ ও জাতির কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন আপনারা। অবসরে তিনি সাধারণ মানুষকে নিয়ে গ্রন্থাগার ও জনকল্যাণমুখী কাজে সম্পৃক্ত থাকবেন বলে জানিয়েছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

    © All rights reserved © 2021 যমুনা প্রতিদিন
    Theme Customized BY Sky Host BD